Thursday , December 5 2019
হোম / বাংলাদেশ / বরিশাল / ৭২ ঘন্টায় বরিশালে ২৯৫ প্রত্যাশীর মনোনয়নপত্র ক্রয়

৭২ ঘন্টায় বরিশালে ২৯৫ প্রত্যাশীর মনোনয়নপত্র ক্রয়

র্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণার পর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি কার্যক্রম শুরু করায় কার্যত ভোটের হাওয়া বইতে শুরু করে বৃহত্তর বরিশাল বিভাগে। ২১টি সংসদীয় আসন নিয়ে গঠিত এই বিভাগে চায়ের দোকান থেকে বেড়রুমে-সর্বত্র চলছে নির্বাচনের আলোচনা। ভোটারদের শংসযের কথা আর প্রার্থীতার ধারণা। দিন যত গড়াচ্ছে ততই জমজমাট হচ্ছে ভোটের আলোচনা। আর আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিদের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের হিড়িক চলছে ঢাকায়।

গত শুক্রবার (৯ নভেম্বর) অনুষ্ঠানিকভাবে মনোনয়ন ফরম বিক্রয় কার্যক্রম শুরুর পর থেকে আজ (১১ নভেম্বর) রবিবার পর্যন্ত তিনদিনে ২৯৫ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী মনোনয়ন ফরম ক্রয় করেন। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে এই সংখ্যা বাড়তেই থাকবে বলে ধারণা করছেন দলীয় নেতারা।

তবে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা জানিয়েছেন, মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করলে দলের প্রধান যাকে মনোনয়ন দিবেন তার হয়েই কাজ করবেন তারা। তিনদিনে এখন পর্যন্ত মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন তাদের মধ্যে বৃহদাংশই তরুন প্রার্থী। এছাড়াও স্থানীয় আ.লীগের সভাপতি-সম্পাদক সহ বর্তমান সংসদ সদস্যরাও রয়েছেন।

আজ (১১ নভেম্বর) রবিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত একদিনে বরিশাল বিভাগ থেকে ৮৮ জনে মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেছেন। যারমধ্যে রয়েছেন, বরিশাল ১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ। মনোনয়ন প্রত্যাশী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর পক্ষে ঢাকার আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ে বিকেল ৩টায় মননায়ন পত্র দাখিল করেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য তালুকদার মোহাম্মদ ইউনুস, সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীরসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মনোনয়নপত্র ক্রয় করেন বরিশাল-৫ আসনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ, বরিশাল সদর আসনে জেবুন্নেসা আফরোজ হীরণ, ঝালকাঠি- ১ আসনের আওয়ামী যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ইয়াসমিন আক্তার পপিসহ ৮৮জন।

শনিবার (১০ নভেম্বর) এই বিভাগ থেকে মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেন ৫৩ জন। তবে সবচেয়ে বেশি মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ হয় প্রথম দিন। বরিশাল বিভাগে ওইদিন (৯ নভেম্বর) শুক্রবার ১৫৪ জনে মনোনয়ন পত্র ক্রয় করেন। যারমধ্যে ছিলেন বরিশাল (সদর)-৫ আসনে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য মশিউর রহমান খান, আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সদস্য আরিফিন মোল্লা, এসআর সমাজ কল্যান সংস্থার উদ্যোক্তা ও আওয়ামী লীগ নেতা সালাউদ্দিন রিপন, বরিশাল-৪ সংসদীয় আসনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট আফজালুল করিম, বরিশাল-৩ আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান।

বরিশাল মহানগর আ.লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল মনে করেন, যিনি আ.লীগের কর্মী/সমর্থক তিনিই মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করতে পারেন। কিন্তু চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী ও দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতে। তিনি যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা সবাই নৌকার জয়ের জন্য তার জন্যই কাজ করব। মনোনয়নপত্র সংগ্রহের বিপুল সংখ্যক প্রত্যাশী কোন ফ্যাক্টর হবে না। কারন আ.লীগ নেতাকর্মীরা সবসময় দলীয় সভানেত্রীর নির্দেশনা মেনেই রাজনীতি করেন।

বরিশাল জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মো: ইউনুস মনে করেন, আ.লীগ একটি বড় দল। এখানে মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যাও বেশি হবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে প্রধানমন্ত্রী যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা সবাই তার জন্যই কাজ করব। এই নেতা ও সংসদ সদস্য মনে করেন, এখানে ব্যাক্তি মূখ্য নয়। দলের সিদ্ধান্তই প্রধান।

উল্লেখ্য, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ২৩ ডিসেম্বর হবে ভোট গ্রহণ, মনোনয়নপত্র জমার শেষ সময় ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত, মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের তারিখ ২২ নভেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর এবং ৫ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

জাতীয় পার্টির মহাসচিব পদে রদবদল

জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে দিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তাঁর জায়গায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *